“এসএসএল সার্টিফিকেট নির্ণায়ক”

অধিবেশন শুরু হলেও বিরোধী পক্ষের অনুপস্থিতিতে কোরাম সংকট- গত কয়েক বছর এভাবেই চলছে আমাদের সংসদ অধিবেশন। নিজেদের দুর্বল অবস্থান তো রয়েছেই, অনেক ক্ষেত্রে বিরোধীরা সংসদ বর্জনকে ব্যবহার করেন রাজনৈতিক কৌশল হিসেবে। বাংলাদেশের দেশে, যেখানে একই সঙ্গে সংকট মোকাবেলা ও দেশকে এগিয়ে নেয়ার তাগিদ রয়েছে, সেখানে যে কোনো দলের পক্ষে টানা ক্ষমতায় থাকাটা দুরূহ। আর এ ক্ষেত্রে বিরোধী পক্ষ কৌশল নেন যে, এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে গিয়ে সরকার যতই জনপ্রিয়তা হারাবে, সহানূভূতি বাড়বে তাদের প্রতি। এ অবস্থায় সরকারের উচিৎ রাজনৈতিক প্রজ্ঞা দেখিয়ে কোনোভাবে বিরোধী পক্ষকে সংসদে ফেরানো। চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় তাদেরও অংশগ্রহণ রাখা। এতে কোনো বিষয়ে ভুল সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও মানুষ একতরফাভাবে সরকারকে দোষারোপ করবে না। অবশ্য সংসদে যাওয়াটাও বিরোধীরা ব্যবহার করতে পারেন রাজনৈতিক কৌশল হিসেবে। সংসদে কোন সদস্যের অনুপস্থিতি নিজ এলাকার উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করলে সেটির ফল তাদেরকে ভোগ করতে হতে পারে পরবর্তী নির্বাচনে। তাছাড়া রাজপথে পরিশ্রমের চেয়ে সংসদে দিয়ে সরকারের সমালোচনা করা হলে বেশি পাওয়া যায় জনসহানুভূতি। এভাবেই সরকারি ও বিরোধী পক্ষের ভূমিকা এগিয়ে নিয়ে যায় একটি দেশকে। দুর্ভাগ্যজনক হলো, এমন বিচক্ষণতা ও গণতান্ত্রিক মনোভাব দেখা যাচ্ছে না এখানকার রাজনীতিতে।

এখন অনলাইনে কাজ করুন নিজের ঘরে বসে আমেরিকান ফিক্সড আইপি এর ডেক্সটপ পিসি দিয়ে। ২৫% ডিসকাউন্ট প্রাইসে পাচ্ছেন আমেরিকান রিমোট ডেক্সটপ পিসি (RDP) মাত্র ৬০০ টাকায় শুধু মাত্র সাইবার ডেভলোপার বিডি তে। ফিচারঃ ✪ রিয়াল… More ডেডিকেটেড আইপি (USA) ✪ ১ কোর সিপিইউ ✪ ১ জিবি র‍্যাম ✪ ১০০ জিবি স্টোরেজ সুবিধা ✪ ১ জিবিপিএস গ্লোবাল পোর্ট স্পীড ✪ রেডহ্যাট অপারেটিং সিস্টেম (লিনাক্স) যেসব কাজের জন্য উপযোগীঃ ✪ আপনি এমন কোন সাইটে কাজ করছেন যেখানে বাংলাদেশ থেকে কাজ করা গ্রহন যোগ্য না, সেই ক্ষেত্রে আপনি আমাদের রিমোট ডেস্কটপ পিসি ব্যাবহার করতে পারবেন। এখানে পাবেন ইউএসএ ডেডিলেটেড আইপি, যা আপনার জন্যই সব সময় ফিক্সড থাকবে। ✪ যাদের অনলাইনে বিভিন্ন সাইটে কাজ করতে ফিক্সড আইপি দরকার হয়। কিন্তু বাংলাদেশের ডায়নামিক আইপিগুলোর জন্য… More

যেসব অথেনটিকেশন পদ্ধতিতে একাধিকবার ভুল লগইনের ব্যাপারে কোনো ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয় না সেসব সাইটে বিভিন্ন হ্যাকিং টুল যেমন বুটাস ব্যবহার করে আক্রমণ করা হয়ে থাকে। আবার যদি ই-কমার্স সাইটে HTTPS প্রটোকল ব্যবহার করা না হয় তবে আক্রমণকারী সহজেই স্নিপিং অ্যাটাকের মাধ্যমে ব্যবহারকারী বা ক্রেতার ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড চুরি করতে পারে।

বিভিন্ন ধরণের সরঞ্জাম রয়েছে যা আপনাকে দ্রুত এবং সহজে আপনার ওয়েবসাইটে লিঙ্কগুলি চেক করতে সাহায্য করতে পারে: Google ওয়েবমাস্টার সরঞ্জামগুলি, Screaming Frog এসইও স্পাইডার এবং অনুসন্ধান Regex শুরু করতে

মেইল ট্যাবের আরএকটি গুরুত্বপূর্ণ অপশন হচ্ছে Forwarders আপনি এটি ব্যাবহার করে POP3 ইমেইলকে আপনার জিমেইল, ইয়াহুমেইল বা অন্য কোন ইমেইলে ফরওয়ার্ড করতে পারবেন। ধরুন আপনার প্রতিষ্ঠানের ইমেইল হচ্ছে info@sportstimebd.com আপনি চাচ্ছেন এই ইমেইলে কোন মেইল আসলে আপনি যেন আপনার পার্সোনাল ইমেইলে এই মেইলের এককপি পেয়ে যান, তাহলে আপনার পার্সোনাল ইমেইটি Forwarders অপশনে Add Forwarder এ ক্লিক করে যোগ করে দিন ।

কয়েক বছর আগে বাগেরহাটের রামপালে সুন্দরবনের কাছে কয়লাভিত্তিক একটি বড় বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ নিলেও পরিবেশবাদী নানা সংগঠন ও স্থানীয় বাসিন্দাদের প্রতিবাদের মুখে তা এগোতে পারছে না। নতুন চুক্তিবদ্ধ বিদ্যুৎকেন্দ্রের বেলায় যাতে এমনটি না ঘটতে পারে, সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে।

সম্প্রতি কয়লাভিত্তিক তিনটি বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের লক্ষ্যে ওরিয়ন গ্রুপের সঙ্গে চুক্তি করেছে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি)। চুক্তি অনুযায়ী এসব কেন্দ্রে ১ হাজার ৮৭ দশমিক ২৪ মেগাওয়াট উৎপাদনের কথা থাকলেও পরবর্তীতে তা ১ হাজার ৩৬০ মেগাওয়াটে উন্নীত হবে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়েছে এ বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে। বিদ্যুতের ক্রমবর্ধমান সঙ্কটে থাকা আমাদের অর্থনীতির জন্য এটি সুখবর বটে। তবে কেন্দ্রগুলো থেকে গ্রীডে বিদ্যুৎ পেতে অপেক্ষা করতে হবে অনেকটা সময়। জানা গেছে, মুন্সীগঞ্জ বিদ্যুৎকেন্দ্রের নির্মাণ সম্পন্ন হতে লাগবে চার বছরের কিছু কম; চট্টগ্রাম ও খুলনায় নির্মিতব্য কেন্দ্র থেকেও বিদ্যুৎ সরবরাহ পাওয়া যাবে না তিন বছরের আগে। সরকার রাজনৈতিক বিবেচনায় নতুন বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে- কথাটি বলার সুযোগ কম এ প্রেক্ষাপটে। তা সত্ত্বেও অনেক দেশেই নির্বাচনের আগে উন্নয়নমূলক কাজে হাত দেয়া হয় না সেটি যেন জনমতে প্রভাব ফেলতে না পারে এবং তাড়াহুড়া করে সিদ্ধান্ত নিতে গিয়ে দুর্নীতির সুযোগ যাতে না বাড়ে। মাসখানেক আগে মন্দাক্রান্ত অর্থনীতিতে প্রবৃদ্ধির চাকা বেগবান করতে পার্লামেন্টের কাছে বেশ কয়েকটি উন্নয়নমূলক পদক্ষেপ নেয়ার সুপারিশ উত্থাপন করে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় ব্যাংক। যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ হওয়ার পরও কেবল নভেম্বর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রভাব ফেলার আশঙ্কায় ও দুর্নীতির সুযোগ রোধেই নাকি এসব সুপারিশের বাস্তবায়ন ২০১৩ সালের জানুয়ারী পর্যন্ত স্থগিত করেছে মার্কিন সিনেট। বিষয়গুলোকে এভাবে দেখার অভ্যাস বাড়াতে হবে আমাদের। রাষ্ট্রায়ত্ত ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেডের পরিশোধন ক্ষমতাবৃদ্ধি সংক্রান্ত একটি প্রকল্প ওরিয়ন হাতে নিলেও সেটির অর্থায়নকারী প্রতিষ্ঠানের সক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে বলে খবর রয়েছে গতকালের বণিক বার্তায়। অবশ্য নতুন তিনটি চুক্তির ক্ষেত্রে তেমন কিছু ঘটার সম্ভাবনা নেই বলে আশ্বস্ত করা হয়েছে ওরিয়নের পক্ষ থেকে। তার পরও এসব গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে যথাসম্ভব সতর্কতা কাম্য।

স্পেকট্রাম বরাদ্দ নেয়া প্রতিটি অপারেটরই সহজে ভেরিফাইড পার্সোনাল নেটওয়ার্ক বা ভিপিএন গরে তুলতে পারে। মাঝে মাঝে সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ও গ্রাহকের নিরাপত্তার স্বার্থেও তা করতে হয়। এ ক্ষেত্রে অন-নেট কলের সর্বনিম্ন চার্জ যেটিই নির্ধারণ করা হোক, অপারেটরের খরচ তেমন নেই বললেই চলে। এ অবস্থায় কলচার্জের পাশপাশি অন-নেট অন্যান্য সেবা যেমন বিভিন্ন ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিসেসের চার্জ আরও কমিয়ে আনা দরকার। দুর্বল অপারেটরদের প্রতিযোগিতার সক্ষমতা বাড়াতে সেলফোন অপারেটরের অন-নেট কলচার্জ আরও কমিয়ে আইপিটিএসপির সমান অর্থাৎ ১০ পয়সাও নির্ধারণ করতে পারতো বিটিআরসি। তাছাড়া, অভ্যন্তরীণ এসএমএস চার্জ যেখানে সর্বোচ্চ ৫০ পয়সা সেখানে অন-নেট প্রতি মিনিট কলচার্জ কমপক্ষে ২৫ পয়সা- কতটা যৌক্তিক এমন প্রশ্নও তুলবেন অনেকে। যুক্তি থাকতে পারে, এভাবে অন-নেট ফোনকল নিরুৎসাহিত করা হয়েছে। কিন্তু কলচার্জ কমিয়ে ও সার্বিকভাবে অন-নেট সেবার ওপর শুল্ক আরও বাড়িয়ে কী গ্রাহককে নিরুৎসাহিত করা যেতো না?

রাজধানীর মধ্য বাড্ডার হায়দার ডিজিটাল ডেন্টাল ক্লিনিক থেকে এক তরুণীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের নাম লিজা আক্তার (২১)। গতকাল শুক্রবার তার লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত লিজা ওই ক্লিনিকে গত বছরের রমজান মাস থেকে

পণ্য পরিবহনে বাংলাদেশে রেলওয়ের বড় দুর্বলতা হলো, কন্টেইনার খালাসে প্রযুক্তিগত সীমাবদ্ধতা ও দক্ষ জনবলের অপ্রতুলতা। পণ্য পরিবহনে অনেক ক্ষেত্রে আমাদের রেললাইনও তেমন উপযোগী নয়। এসব দুর্বলতা দূরীকরণে ভারতের সহায়তা নেয়া যেতে পারে। সম্প্রতি বাণিজ্যিক প্রতিদ্বন্দ্বী চীনের কুনমিং থেকে শুরু করে মায়ানমার, ভুটান, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড ও সিঙ্গাপুরের সঙ্গে দেশটির সরকার সুদীর্ঘ রেল ট্র্যাক স্থাপনের পরিকল্পনা নিয়েছে বলে এসেছে গণমাধ্যমে। এতে সিংহভাগ বিনিয়োগও নাকি করবে ভারতীয়রাই। এমন প্রেক্ষাপটে অমূলক ধারণার বশবর্তী হয়ে ব্যবসা-বাণিজ্য বৃদ্ধির সুযোগকে অগ্রাহ্য করাটা বিচক্ষণ হবে না।

ভারতের ট্রান্সিট ভিসার জন্য আবেদন করেই নিজেই ইন্টারনেট আর ট্রিপ এডভাইজার ঘুরে ঘুরে ভূটান ট্র্যাভেল প্ল্যান ডিজাইন করলাম, ভূটানের শহরভেদে হোটেল খোজার একটা ভালো ওয়েবসাইট আছে, ওগুলোর খবর নিলাম, ট্রিপ এডভাইজারের ফোরামগুলোর সাহায্য নিলাম, ৫-৬ দিনের মধ্যে সুন্দর একখানা আইটেনারি দাঁড়িয়ে গেল। বলে রাখি, কোন শহরে গিয়ে শুধু দর্শনীয় স্থান দেখতে আর লাক্সারী হোটেলে থাকতে আমার ভালো লাগে না। আমি যে কোন শহরে গেলে শহরের রাস্তায় হাটতে, লোকাল খাবার দোকানে খেতে, মানুষদের সাথে খুব রিলাক্সডভাবে গল্প করতে পছন্দ করি। ঠিক ওভাবেই প্ল্যানটা করলাম। প্ল্যান দাড়ালো ১০ দিনের, বাসে যাওয়া আসার ২দিন সহ। ঠিক করলাম থিম্পু, পারো, পুনাখা, হা, ফোবজিকা ঘুরব।

যাদের মাথায় সব সময় আইডিয়া কিলবিল করে এবং সেই আইডিয়ার বাস্তবায়নে নতুন নতুন ওয়েবসাইট তৈরী করেন, শুধু মাত্র আপনাদের জন্য Cyber Developer BD-এর কিলবিল আইডিয়া অফার। সুপার সাশ্রয়ী মুল্যে পাচ্ছেন পপুলার সব টিএলডি।… More অফারটি ২৮-২-২০১৮ পর্যন্ত আছে। তাই যারা এখনো ডোমেইন কেনেন নাই আজই অর্ডার করেন।

যদিও আলোর গতি (১৮৬,০০০ মাইল/সেকেন্ড) অনেক বেশি কিন্তু সেটা তারপরেও লিমিটেড একটি গতি। বিজ্ঞানের অনুসারে কখনোই কোন সিগন্যাল বা কমিউনিকেশন সিস্টেম আলো চেয়ে অধিক গতিতে ভ্রমন করতে পারে না। আর যদি গতি লিমিটেড হয়, এর মানে ভিজিটর কম্পিউটার থেকে সার্ভার কম্পিউটার যতো দূরে হবে, পেজটি ইন্টারনেটে ভ্রমন করে এসে পৌছাতে ততোবেশি সময় লাগবে! এখন আপনার ওয়েব সার্ভার যেহেতু অ্যামেরিকাতে অবস্থিত, তো অবশ্যই অ্যামেরিকাতে আপনার সাইট দ্রুত লোড হবে, কিন্তু এশিয়া থেকে আপনার সাইট স্লো লোড হবে। কেনোনা এশিয়া পর্যন্ত আপনার সাইটের পেজ ভ্রমন করে আসতে অনেক সমুদ্র পার হতে হয়, সাথে অনেক টাইপের কানেকশনের মধ্য হয়ে তবেই আপনার পর্যন্ত পৌছাতে পারে। এখন হতে পারে আপনার সাইট অ্যামেরিকাতে রয়েছে, কিন্তু আপনি যদি বাংলা সাইট তৈরি করেন বা এশিয়াকে টার্গেট করে কোন সাইট তৈরি করেন, সেখানে অবশ্যই এশিয়ান ভিজিটর বেশি থাকবে। এক্ষেত্রে অবশ্যই ফাস্ট পেজ লোড প্রদান করতে আপনাকে এশিয়ান কোন সার্ভারে সাইট হোস্ট করা বেস্ট হবে।

ক্রেডিট কার্ড নীতিমালা বাস্তবায়নের আগেই পরিবর্তনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। কার্ড ব্যবসা করে এমন শীর্ষ ব্যাংকগুলোর দাবির মুখেই এমন উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। গতকাল সোমবার ব্যাংকগুলোর সঙ্গে এক সভায় এমনই ইঙ্গিত দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।গত ১১ মে ক্রেডিট কার্ড

অনেকের অভিযোগ, দক্ষতার সঙ্গে অন্যান্য কার্যক্রম পরিচালনা করলেও গ্রাহক সেবা মানের ঘাটতি রয়েছে এখানকার ব্যাংকগুলোর। ঋণ নিতে গেলে অনেক সময় প্রয়োজনীয় দেখানোর পরও পোহাতে হয় দুর্ভোগ। যেসব ব্যাংক ‘খুচরা’ গ্রাহকের ওপর নির্ভরশীল নয়, সেখানে নাকি গ্রাহক সেবার মান কম। অনেক ক্ষেত্রে বিনা কারণে নষ্ট করা গ্রাহকদের সময়। রেমিট্যান্স সেবা সংক্রান্ত অভিযোগও রয়েছে কারো কারো। ব্যাংকিং সেবার নানা জটিলতা ও অসহযোগিতার কথা শোনা যায় আউটসোর্সকারীদের মুখে। অধিকাংশ ব্যাংকই এখন দিচ্ছে এটিএম সেবা। এ নিয়েও অভিযোগ কম নেই- বুথে জাল টাকা পাওয়া যায়, অনেক সময় কাজ করে না সার্ভার নেটওয়ার্ক, মেশিনে টাকা থাকে না প্রভৃতি। এরই মধ্যে কয়েকটি ব্যাংক দিচ্ছে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা। এ ক্ষেত্রেও এবং নিজস্ব গ্রাহক সেবা কেন্দ্র থাকার পরও ব্যাংক সেবার মান নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে অনেক গ্রাহকের। এসব বিড়ম্বনা রোধে সেনা সমর্থিত তত্ত্ববধায়ক শাসনামলে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় ব্যাংকে বড় হরফে ও সবার নজরে পরে এমন স্থানে সিটিজেন চার্টারসহ গ্রাহক সেবার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেয়ালে টানিয়ে রাখার। আইন করা হলেও অনেক ক্ষেত্রেই এসব লংঘনের খবর পাওয়া যায়। মাঝে ব্যাংকে অভিযোগ বাক্স রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। সেটি কম-বেশি পালিত হয়ে আসছে; তবে এতে গ্রাহক সেবার মান কতটা বেড়েছে জানা যায় নি। শহর ও শহরতলীয় চেয়ে এসব নিয়ে অভিযোগ বেশি পল্লী অঞ্চলে। সুসংবাদ হলো, সম্প্রতি সেবার মান বাড়াতে বাংলাদেশ ব্যাংক গ্রাহক স্বার্থসংরক্ষণ কেন্দ্র চালু করেছে বলে প্রতিবেদন ছাপা হয়েছে বৃহস্পতিবার বণিক বার্তায়।

দেশে সবচেয়ে বেশি জ্বালানি তেল চুরির ঘটনা শোনা যায়, নৌ ও সমুদ্র পথে। এ ক্ষেত্রে দেশী নৌযানের পাশাপাশি অভিযোগ রয়েছে অনেক তেলবাহী বিদেশি ট্যাংকারের বিরুদ্ধেও। জাহাজ জেটিতে ভেড়ার আগেই সেগুলো ছোট-মাঝারি নৌকায় অপরিশোধিত তেল সরিয়ে ফেলে। তেল পরিমাপক মিটার টেম্পারিং করার মাধ্যমে বন্দরে এসেও নাকি তেল চুরি করে কিছু জাহাজ। এসব অপরিশোধিত তেলের বেশির ভাগই আবার পাচার হয়ে যায় পার্শ্ববর্তী মিয়ানমারে। বন্দর থেকে অভ্যন্তরীণ নৌবন্দরে তেল পরিবহনে সময় মাঝ পথে ও জেটিতেও একই উপায়ে তেল চুরির ঘটনা রয়েছে। এমন প্রেক্ষাপটে ক্ষেত্রে নৌ ও সমুদ্র পথে নজরদারি জোরালো করতে হবে। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে নিতে হবে দ্রুত ও যথাযথ ব্যবস্থা।

This channel may use some copyrighted materials without specific authorization of the owner but contents used here falls under the “Fair Use” as described in The Copyright Act 2000 Law No. 28 of the year 2000 of Bangladesh under Chapter 6, Section 36 and Chapter 13 Section 72. According to that law allowance is made for “fair use” for purposes such as criticism, comment, news reporting, teaching, scholarship, and research. Fair use is a use permitted by copyright statute that might otherwise be infringing. Non-profit, educational or personal use tips the balance in favor of fair use.

দেশে সরকারি স্বাস্থ্যসেবার মান ও পর্যাপ্ততা নিয়ে সন্দিহান অনেক মানুষের ভরসা বেসরকারি চিকিৎসা কেন্দ্রগুলো। অবশ্য সরকারি চিকিৎসকদের ‘রেফারেন্সে’ও সেখানে যান তারা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরিসংখ্যান অনুযায়ী এখানকার প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ মানুষ চিকিৎসা সেবা নিতে বেসরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ওপর নির্ভর করেন। এ সুযোগেই বোধকরি এক শ্রেণীর বেসরকারি চিকিৎসাকেন্দ্র রোগীদের কাছ থেকে নানা উপায়ে আদায় করছে অতিরিক্ত ফি। শহরে এ ধরনের অভিযোগ কমে এলেও ক্রমেই উপশহর ও গ্রামাঞ্চলের দিকে বাড়ছে তা। গতকাল বণিক বার্তায় এমনই এক প্রতিবেদন ছাপা হয়েছে ‘যশোরে রোগীদের কাছে অতিরিক্ত ফি নেয়ার অভিযোগ’ শিরোনামে। এ অঞ্চলের অনেক বেসরকারি চিকিৎসাকেন্দ্র নীতিমালার তোয়াক্কা না করেই চালানো হচ্ছে, বলে অভিযোগ। এতে বিড়ম্বনা বাড়ছে; অনেক ক্ষেত্রে কাঙ্ক্ষিত ফলও পাচ্ছেন না রোগীরা।

ই-কমার্স ওয়েবসাইট অ্যাকসেস করার জন্য ব্যবহারকারীকে ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করতে হয়। এখন যদি কেউ তার ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড চুরি করতে পারে তবে সে ওই ব্যবহারকারীর সব তথ্য জেনে যেতে পারবে বা পরিবর্তন করতে পারবে।

এছাড়াও আরো একটি দরকারি সার্চ টার্ম আছে। ধরুন আপনি একটি ওয়েবসাইট বা একটি সোশ্যাল নেটওয়ার্ক প্রত্যেকদিন ভিজিট করেন বা ব্যবহার করেন। এখন আপনি যদি জানতে চান যে ইন্টারনেটে আপনার ডেইলি ভিজিট করা এই সাইটটির মতো আরো কি কি সাইট আছে বা এই ধরণের রিলেটেড আরো কি কি সাইট আছে, সেটিও আপনি গুগল সার্চ থেকে বের করতে পারবেন। যেমন উদাহরণস্বরূপ, আপনি প্রত্যেকদিনই ফেসবুক ব্যবহার করেন। এখন আপনার যদি ইচ্ছা হয় এটা জানার যে ইন্টারনেটে ফেসবুকের মতো আরো কি কি সাইট আছে, তাহলে আপনি জাস্ট গুগল সার্চ বক্সে টাইপ করতে পারেন- related: facebook.com। এভাবে টাইপ করে সার্চ করলে related: এর পরে লেখা সাইটটির মতো একই ধরণের আরো কি কি সাইট আছে সেগুলো আপনাকে নিচে সার্চ রেজাল্টে দেখানো হবে।

বিআইবিএমের মহাপরিচালক ড. তৌফিক আহমেদ চৌধূরীর সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন পূবালী ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং বিআইবিএমের সুপারনিউমারারি অধ্যাপক হেলাল আহমদ চৌধুরী, এনআরবি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মেহমুদ হোসাইন, ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেডের সাবেক উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিআইবিএমের অনুষদ সদস্য সৈয়দ মোহাম্মদ বারিকুল্লাহ এবং ইসলামী ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মাহবুব উল আলম।

যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের অনুমতি মিললে আরও ২ হাজার সিএনজিচালিত অটোরিকশা (সিএনজি) রাজধানীতে নামবে বলে খবর রয়েছে গতকালের বণিক বার্তায়। এতে বেশ কিছু লোকের কর্মসংস্থান হলেও সামগ্রিকভাবে এটিকে ইতিবাচকভাবে নেয়ার সুযোগ কম। ঢাকার যানজট নিয়ে বলার কিছু নেই। কম যাত্রী ধারণক্ষম সিএনজির সংখ্যা আরও বাড়ানো হলে পরিস্থিতিটির বড় অবনতি না ঘটলেও মানুষের দুর্ভোগ কিছুটা বাড়বে। অথচ কয়েকদিন আগেই সরকার যানজট কমাতে স্কুল-কলেজে গণপরিবহন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়। তারও আগে প্রাইভেট কারের আমদানি ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত শুল্কারোপসহ একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছিল সরকার। এমন পরিস্থিতিতে সিএনজি বাড়ানোর সিদ্ধান্তটি ঠিক বোধগম্য হয় না। অতীতে এমন একটি ঘটনায় দুর্নীতির খোঁজ মিলেছিল। খতিয়ে দেখতে হবে, এ ক্ষেত্রেও তেমন কিছু ঘটেছে কিনা।

সরকারের কন্ট্রোলার অব সার্টিফাইং অথরিটি (সিসিএ) ডিজিটাল স্বাক্ষর ও সনদের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অনুমোদিত কর্তৃপক্ষ। সিসিএ দেশে এখন পর্যন্ত দোহাটেক নিউ মিডিয়া, ডাটা এজ, ম্যাংগো টেলিসার্ভিস, বাংলাফোন, কম্পিউটার সার্ভিসেস এবং বিসিসি এই ছয়টি প্রতিষ্ঠানকে ডিজিটাল স্বাক্ষর ও সনদ প্রদানের লাইসেন্স দিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলো নিয়ে চলতি মাসেই বাংলাদেশ পাবলিক কি ইনফ্রাস্ট্রাকচার বা পিকেআই ফোরাম গঠিত হয়েছে। নবগঠিত ফোরামটি এশিয়া পিকেআই কনসোর্টিয়ামের মূল সদস্য মনোনীত হয়েছে।

রোজায় ময়মনসিংহে জুয়েলারি ব্যবসা ভালো চলছে না বলে খবর এসেছিল সপ্তাহখানেক আগে বণিক বার্তায়। গতকালের এক প্রতিবেদনে দেখা যাচ্ছে, নতুন বিভাগীয় শহরে রূপান্তরিত রংপুরেও একই অবস্থা। জানা যাচ্ছে, এ শহর দুটি নয় জুয়েলারি ব্যবসায় মন্দা চলছে সবখানেই। ব্যবসায়ীরা বলছেন, বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দামে টানা বৃদ্ধিই এর প্রধান কারণ। বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতির (বাজুস) হিসাব অনুসারে, গত বছর ৩১ জানুয়ারী থেকে চলতি আগস্ট মাসের প্রথম সপ্তাহে ২২ ক্যারেট প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম বেড়েছে আনুমানিক ১৫ হাজার ২২১ টাকা। অনেকের মতে, সাম্প্রতিক সময়ে জুয়েলারী শপে অনেকগুলো বড় চুরি-ডাকাতিও স্বর্ণালংকারের দাম বাড়ার অন্যতম কারণ। এ বিষয়ে বাজুসের পক্ষ থেকে একাধিকবার কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিও আকর্ষণ করা হয়। দেশে স্বর্ণের বাজার স্থিতিশীল রাখা ও ব্যবসা চাঙ্গা করতে জুয়েলারি শপে চুড়ি-ডাকাতিকে যথাযথ গুরুত্বসহ নেয়া দরকার। এ ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের মনোযোগের ঘাটতি রয়েছে বলেই প্রতীয়মাণ। এমন পরিস্থিতিতে আইনের সুষ্ঠু প্রয়োগ ও জুয়েলারি শপে চুরি-ডাকাতি সংক্রান্ত বিচার প্রক্রিয়ায় গতি আনতে হবে। শপের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারকরণেও দৃষ্টি রাখতে হবে ব্যবসায়ীদের।

সাঁড়া মাড়োয়ারী মডেল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আয়নুল ইসলাম বলেন, বিদ্যালয়ের সার্বিক ফলাফলে আমরা খুবই সন্তুষ্ঠ। শিক্ষার্থীরা নিজেদের মেধা ও যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছে। আমাদের পরীক্ষার্থী ছিল ২৯৪ জন। তাদের মধ্যে সবাই উত্তীর্ণ হয়েছে ।

একই পরীক্ষায় বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের কোনো শিক্ষার্থীই পাশ করতে পারে নি গত বছর। সংখ্যাটি অপরিবর্তিত রয়েছে এবারও। ভালো হয়, উক্ত প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আর্থিক শাস্তির দিকে না গিয়ে প্রকৃত সমস্যা চিহ্নিত ও তা দূরীকরণে এগিয়ে আসা গেলে। কেউ কেউ বলেন, উত্তরপত্র মূল্যায়নে শিথীলতাই গত কয়েক বছর ধরে উচ্চমাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষার পরিসংখ্যান ভালো দেখানোর কারণ। এ দুর্বলতাটি কাটিয়ে উঠতে হবে দ্রুত। সে ক্ষেত্রে উত্তরপত্র মূল্যায়নে নির্দিষ্ট কাঠামো অনুসরণ ও পরীক্ষকদের পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণ দেয়া দরকার। নানা সমস্যা স্বত্বেও নির্দ্বিধায় বলা যাবে না- পাবলিক পরীক্ষার ফলাফলে আমাদের পরিসংখ্যানগত অবস্থান যতটা ভালো; মান ততটা নয়। ওসব পরিসংখ্যানগত সূচকের উন্নতি অগ্রাহ্য করার সুযোগ কোথায়? তবুও বাস্তবতা হচ্ছে, প্রতিটি স্তরে সামগ্রিকভাবে শিক্ষার যে মান আকাঙ্ক্ষা করা হয়- তা থেকে আজও দূরে আমরা। আকস্মিকভাবে বড় উন্নতির সুযোগ নেই বলে লক্ষ্য রাখতে হবে, শিক্ষার যে গুণগত মান আমাদের কাম্য সে দিকে অগ্রযাত্রা যেন অব্যাহত থাকে। নইলে একবিংশ শতাব্দীর উপযোগী মানবসম্পদ গঠনে পিছিয়ে পড়তে পারি আমরা।

One Reply to ““এসএসএল সার্টিফিকেট নির্ণায়ক””

  1. সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নে তৈরি বিমান নিয়ে অভিযোগ রয়েছে ব্যবহারকারী অনেক দেশের। তাদের মতে, প্রথম ও দ্বিতীয় প্রজন্মে তৈরি এ ধরনের বিমানে অনেক মডেলেই নেই স্বয়ংক্রিয় জরুরি নির্গম, আধুনিক যোগাযোগ ও বিমান নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা। বিশেষত প্রশিক্ষণ ও যুদ্ধবিমানের ক্ষেত্রে এ নিয়ে বড় দুশ্চিন্তা ছিল ভারতের। বড় সমস্যা হলো, এ ধরনের বিমান রক্ষণাবেক্ষণে অভিজ্ঞ ও জীবিত বিশেষজ্ঞ পাওয়াটা। শেষ পর্যন্ত রাশিয়ায় তৈরি ওসব বিমান নিজস্ব ওয়ার্কশপে নিয়ে যুগোপযোগী করতে হয়েছিল দেশটিকে। বিমান নিরাপত্তায় এমন ব্যবস্থা নিতে পারি আমরাও। এতে অ্যারো ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে উঠবে; কাজে লাগানো যাবে বহু অর্থ ব্যয়ে কেনা বিমান।
    মালাগাছির বাসিন্দারা তাদের এলাকার ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেছে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, ইমেইল এবং সংক্ষিপ্ত বার্তা বা এসএমএস-এর মাধ্যমে সংবাদ সংগ্রহের জন্য একটি ক্রাউডসোর্সিং ইন্টারএ্যাকটিভ মানচিত্র স্থাপন করা হয়েছে।
    সার্টিফিকেট থাকলে কি আর এখানে কাজ করি। তখন তো সার্টিফিকেটের এতো মূল্য বুঝি নাই। তবে আমারটা ছিল। কিন্তু কপাল খারাপ। রান্নার সময় বাড়িতে আগুন লাগে। আমি ছিলাম ডিউটিতে। তখন আগুনে পুড়ে যায়। ১৯৮৯  সালে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *